প্রচ্ছদ >> সম্পাদকীয়

বরিশালে মায়ের হাতে পুত্র খুন

ঢাকা: মাদকাসক্ত পুত্রের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে খাবারের সাথে ইঁদুরের ওষুধ খাইয়ে অচেতন করে কাঠ দিয়ে পিটিয়ে ছেলেকে হত্যা করেছে মা মনোয়ারা বেগম।
 
পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার হওয়া মা মনোয়ারা বেগম শনিবার রাতে পুলিশের কাছে এমনই তথ্য দিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বরিশালের হিজলা উপজেলার পত্তনীভাঙ্গা গ্রামে। এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই স্থানীয় গ্রামপুলিশ (চৌকিদার) আলী হোসেন বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
 
মনোয়ারা বেগমের স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়ে হিজলা থানার ওসি শওকত আনোয়ার জানান, উপজেলার গোয়াবাড়িয়া ইউনিয়নের পত্তনীভাঙ্গা গ্রামের মকবুল খানের পুত্র আহসান হোসেন (২৮) দীর্ঘদিন থেকে মাদকাসক্ত হয়ে পরে। নেশার টাকার জন্য সে প্রায়ই তার মা-বাবা ও স্ত্রীকে মারধর করতো। পুত্র আহসানের অমানুষিক নির্যাতন ও অত্যাচারে অতিষ্ঠ ছিলো তার মা ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা।
 
ওসি আরো জানান, ঘটনার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে পুলিশ শনিবার দুপুরে নিহতের মা মনোয়ারা বেগম ও নিহতের স্ত্রী শাহনাজ বেগমকে আটক করে থানায় নিয়ে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে। একপর্যায়ে পুত্রকে হত্যার কথা স্বীকার করেন মা মনোয়ারা বেগম। তবে নিহতের স্ত্রী হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি জানলেও সরাসরি এ হত্যাকাণ্ডের সাথে সে জড়িত ছিলোনা বলে জানিয়েছেন মনোয়ারা বেগম।
 
বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার একেএম এহসানউল্লাহ  পুত্র আহসান খানকে হত্যাকাণ্ডের কথা তার মা স্বীকার করেছেন। তিনি আরো জানান, নিহতের পিতা মকবুল খান অতিবৃদ্ধ হওয়ায় স্থানীয় গ্রামপুলিশ আলী হোসেন বাদী হয়ে উল্লেখিত ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

2019-12-18-09-09-38আলফা নিউজ ডেস্ক:সোমবার তথ্য মন্ত্রণালয়ে এক ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, সব আবেদন যাচাই করে সিদ্ধান্ত জানাতে কিছুটা সময় লাগবে। আগামীতে আবারও নিবন্ধনের জন্য দরখাস্ত চাওয়া হবে। মন্ত্রী বলেন, এবার ৩ হাজার ৫৯৭টি দরখাস্ত তথ্য মন্ত্রণালয়ে জমা পড়েছিল। সেগুলো তদন্ত করার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছিল। “স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তখন টেলিকম মিনিস্ট্রি,...
     
 
এই বিভাগের সর্বশেষ আপডেট