প্রচ্ছদ >> লাইফস্টাইল

কর্মক্ষেত্রে স্মার্ট হোন

ঢাকা : জীবনে সফল হওয়ার জন্য স্মার্টনেস খুবই দরকারি৷ কিন্তু সেই সবাই সমান স্মার্ট হয় না৷ অনেকে বেশ লাজুকও হন৷ সেই লাজুক মানুষটির ভবিষ্যত্‍ কী হতে পারে? তিনি কি নিজের লজ্জা কাটিয়ে এগোতে পারবেন, নাকি বাকিরা এগিয়ে যাবেন, আর তিনি পড়ে থাকবেন একই জায়গায়? নিশ্চয়ই না৷ সবার জন্যই রাস্তা আছে৷ আত্মবিশ্বাস বজায় রেখে যদি কাজ করতে পারেন, তাহলে লাজুক মানুষটিও পৌঁছে যেতে পারেন সাফল্যের শীর্ষে৷

আপনার সহকর্মী, আপনার ক্লায়েন্ট আর সব চেয়ে বড় কথা, আপনার বস জানেন, আপনি লাজুক৷ কিন্তু আপনি যে লাজুক নন, আপনি আসলে একটু অন্য রকম এটা তাঁদের কাছে প্রমাণ করাটাই আপনার আসল চ্যালেঞ্জ৷ যাঁরা লাজুক তাঁদের জন্য নতুন চাকরিতে প্রবেশ করার পর বাকিদের সঙ্গে মানিয়েও ঠাটা আরও বড় সমস্যা হয়ে যায়৷ এসব ক্ষেত্রে কী করতে পারেন?

যোগাযোগ বাড়ান

নতুন অফিসে যাঁরা জয়েন করেছেন, তাঁদের জন্য এটাই একমাত্র রাস্তা৷ সাধারণত লাজুক মানুষরা একদল নতুন মানুষের সঙ্গে কথা বলা শুরু করতে খুব একটা স্বচ্ছন্দ বোধ করেন না৷ বরং একজন একজন করে আলাপ করতে কিংবা 'ওয়ান-টু-ওয়ান' ইন্টার অ্যাকশনই তাঁদের বেশি পছন্দ৷ তাই প্রতিদিন আলাপ বাড়ান, তারপর বাড়ান যোগাযোগ৷ প্যান্ট্রি-তেবস যদি যান, তাঁর পিছন পিছন আপনিও যান৷ কফি মেশিন-এর সামনে টুকটাক কথা দিয়ে যোগাযোগ বৃদ্ধির চেষ্টা করুন৷ বাকিদের সঙ্গেও এই পথেই হাঁটতে পারেন৷ কিন্তু এই কারণে বারাবার প্যান্ট্রি-তে ছোটাটাও হাস্যকর৷ তাই অন্যরাস্তাও খুঁজে পার করুন নিজে৷ যেখানে সহকর্মী কিংবা বস-কে কয়েক মিনিটের জন্য একা পেয়ে যাবেন৷

মিটিং-এ বলুন

কোনও মিটিং-এ চুপ করে বসে থাকবেন না৷ নিজের মতামত ব্যক্ত করতে অস্বস্তি হলে, সেই সংক্রান্ত বিষয়ে প্রশ্ন করুন৷ যাতে কথার সূত্র ধরে আপনি নিজের মতটিও ব্যক্ত করার সুযোগ পান৷ প্রশ্নকরলে আরও একটি সুবিধা হবে৷ আপনি যে মিটিং-এর বিষয়ে রীতিমতো ভাবছেন, এবং আলোচনায় আপনি ইনভলভ্ড, তা প্রমাণ করার সেরা রাস্তাএটাই৷

কাজের খিদে বাড়ান

আপনার কাজ নেই, এটার চেয়ে খারাপ আর কিছু হতে পারে না৷ কাজ না থাকলেও অফিসে ঘুরে বেড়াবেন না৷ বরং আপনার বস কিংবা ম্যানেজারকে মেইল করুন এই মর্মে যে, আপনাকে শেষ যে কাজ এসাইন করা হয়েছিল, তা আপনি সময়ের আগেই শেষ করে ফেলেছেন৷ যদি ওঁরা চান, আপনাকে আরও কাজ দিতে পারেন৷ এই ধরনের মেইল ম্যানেজাররা অত্যন্ত পছন্দ করেন৷ আর এতে আপনার উপকার হওয়ার সম্ভাবনা প্রায় একশো শতাংশ নিশ্চিত৷

এটাই অ্যাডভান্টেজ

আপনি যে লাজুক, সেটা আপনার জন্য অ্যাডভান্টেজও হয়ে যেতে পারে৷ কম কথা বলার মানে, গণ্ডগোলের মধ্যে পড়ার সম্ভাবনা কমে যায়৷ আপনার পরবর্তী পদক্ষেপকী হতে চলেছে, সেটা সম্পর্কেও বাকিদের ধারণা খুব একটা থাকে না৷ আর যেহেতু আপনি কম কথা বলেন, তাই যে সামান্য কথা আপনি বলবেন, সেটা সকলেই মন দিয়ে শুনবে৷ কারণ অত্যন্ত প্রয়োজননা হলে যে আপনি কথা বলেননা, সেটাতো সকলেই জেনে ফেলেছেন৷ আপনার লজ্জাকে আপনার হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করুন৷

FacebookMySpaceTwitterDiggDeliciousStumbleuponGoogle BookmarksRedditNewsvineTechnoratiLinkedinMixxRSS FeedPinterest
Pin It

উন্নয়ন চাইলে নৌকায় ভোট দিন: হাসিনা

সম্পাদকীয় |  শনিবার, 16 সেপ্টেম্বর 2017
আলফা নিউজ ডেস্ক : বৃহস্পতিবার রাজশাহীর পবা উপজেলার হর...
Read More

অনন্ত-বর্ষার নয়া রেকর্ড

লাইফস্টাইল -1 |  মঙ্গলবার, 17 সেপ্টেম্বর 2013
ঢাকা: এম এ জলিল অনন্ত ও বর্ষা জুটি একের পর এক বিভিন্ন উ...
Read More

সেকেন্ডেই ডাউনলোড করা যাবে সিনেমা

প্রযুক্তি-1 |  বৃহস্পতিবার, 23 জানুয়ারী 2014
প্রতি সেকেন্ডেই ডাউনলোড করা যাবে একটি সিনেমা। তবে এর ...
Read More

বিএফইউজে নির্বাচন: বুলবুল সভাপতি, জলিল সম্পাদক

মুক্তমত-1 |  শনিবার, 21 সেপ্টেম্বর 2013
নিজস্ব প্রতিবেদ: বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বি...
Read More

কুটুম পরিচয়ে বীথির বেডরুমে থাকতো কামাল

সম্পাদকীয় |  মঙ্গলবার, 17 সেপ্টেম্বর 2013
স্টাফ রিপোর্টার: কুটুম পরিচয়ে বাসায় যেতো। বান্ধবীকে স্ত...
Read More
এই বিভাগের সর্বশেষ আপডেট