প্রচ্ছদ >> স্বাস্থ্য

রোহিঙ্গা সামালে দ্রুত সাড়া দিন: দাতাদের জাতিসংঘ

আলফা নিউজ ডেস্ক: জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাই কমিশনের (ইউএনএইচসিআর) প্রধান ফিলিপ্পো গ্রান্ডি, জাতিসংঘের আন্ডার-সেক্রেটারি- জেনারেল (হিউম্যান অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড ইমার্জেন্সি রিলিফ) মার্ক লোকক এবং আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) মহাপরিচালক আন্তোনিও ভিতোরিনোর নেতৃত্বে ২০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল শুক্রবার সকালে কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী-২ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যান। তারা সেখানে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডব্লিউএফপি) খাদ্য বিতরণ কেন্দ্র পরিদর্শন করেন এবং মিয়ানামারে রাখাইনে নিপীড়নের শিকার রোহিঙ্গা নারী ও শিশুদের সঙ্গে কথা বলেন। পরে এক যৌথ বিবৃতিতে জাতিসংঘের সংস্থাগুলোর প্রধানরা রোহিঙ্গা শরণার্থীসহ বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের এই ঊপকূলীয় জেলার ১২ লাখ মানুষের জরুরি প্রয়োজন মেটাতে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান। ‘এই বোঝা’ সামলে নিতে দাতাদের প্রতি দ্রুত আরও ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান তারা। যৌথ বিবৃতির আগে এক টুইটে ফিলিপ্পো গ্র্যান্ডি লেখেন, “উচ্চ মূল্য, বনভূমি ধ্বংস, যানজট, নিরাপত্তাহীনতা… কক্সবাজার পরিদর্শন করছি, আরও একবার, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয় দেওয়া স্থানীয় জনগোষ্ঠীর ওপর ভয়াবহ প্রভাব দেখা যাচ্ছে। ৥আইওএমচিফ ৥ইউএনরিলিফচিফ ও আমি এই বোঝা সামাল দিতে দাতাদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি আরও ভূমিকা রাখার জন্য (এবং দ্রুত পদক্ষেপ নিন)।” যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, ১২ বছরের কম বয়সী ৫ লাখ ৪০ হাজার রোহিঙ্গা শিশুর প্রায় অর্ধেক এখন শিক্ষার বাইরে। বাকিদের শিক্ষার সুযোগও সীমিত পরিসরে। কিশোর-কিশোরীদের মাত্র গুটিকয় কোনো ধরনের শিক্ষা বা প্রশিক্ষণের সুযোগ পাচ্ছে। “এটা বিশ্বের সবচেয়ে বড় শরণার্থী সংকটের একটি হয়ে রয়েছে,” বলেন গ্রান্ডি। ভিতোরিনো বলেন, “বাংলাদেশে নয় লাখের বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থী রয়েছে, যাদের অধিকাংশই ২০১৭ সালে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসেছে। তাদের অনেক অগ্রগতি দেখছি, কিন্তু তাদের পরিস্থিতি বিশেষত নারী ও শিশুদের অবস্থা এখনও শোচনীয়। “প্রায় দুই বছর এই সংকট চলছে। আমাদের শরণার্থীদের শিক্ষার সুযোগ, দক্ষতা তৈরি এবং তারা মিয়ানমারে ফিরলে যাতে সমাজে ভূমিকা রাখতে পারে সেজন্য প্রস্তুত করার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখতে হবে।” রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি তাদের আশ্রয় দেওয়া স্থানীয় জনগোষ্ঠীকেও অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হচ্ছে বলেও পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেন তিনি। “আমি এমন শিশুদের দেখা পেয়েছিলাম, যারা চোখের সামনে বাবা-মাকে খুন হতে দেখেছে। নারীরা তাদের ওপর সংঘটিত যৌন সহিংসতার ভয়ানক গল্প আমাকে শুনিয়েছিল।” তাদের শুধু নির্মম ওই অভিজ্ঞতা থেকে বের করে আনাই নয়, একটি সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য প্রস্তুত করার দিকে মনোযোগ দেওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন তিনি। জাতিসংঘের প্রতিনিধি দলের সদস্যরা বুধবার বিকালে ঢাকা পৌঁছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। বৃহস্পতিবার বিকালে ঢাকা থেকে কক্সবাজারে পৌঁছে তারা জেলা প্রশাসন এবং কক্সবাজার ত্রাণ ও রোহিঙ্গা শরণার্থী কমিশনারের সঙ্গে আলাদাভাবে বৈঠক করেন। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
FacebookMySpaceTwitterDiggDeliciousStumbleuponGoogle BookmarksRedditNewsvineTechnoratiLinkedinMixxRSS FeedPinterest
Pin It

শীতের বাহারি পোশাক

লাইফস্টাইল -1 |  মঙ্গলবার, 31 ডিসেম্বর 2013
কনকনে হাওয়া বইতে শুরু করেছে। বাড়ছে শীতের তীব্রতা। ঘরেবা...
Read More

হাতে বোনা তাঁতের লুঙ্গি নিয়ে অনলাইনে নূর-আবেদিন

সম্পাদকীয় |  শনিবার, 14 অক্টোবার 2017
আলফা নিউজ ডেস্ক : লুঙ্গি, পুরুষের পোশাক, শত শত বছরের ঐত...
Read More

ঢাকায় পুলিশের ‘ডিজিটাল কার পার্কিং’

সম্পাদকীয় |  বুধবার, 10 এপ্রিল 2019
আলফা নিউজ ডেস্ক: সচিবালয়ের পাশে আব্দুল গণি রোডে ডিএম...
Read More

কীভাবে মিলবে দাম্পত্য-সুখ (2)

লাইফস্টাইল -1 |  বুধবার, 17 জুলাই 2013
শাড়ি বা সালোয়ার কামিজ তো সবসময়ই পড়া হয়, নিজের আউট লুকট...
Read More

না ফেরার দেশে সুচিত্রা

সম্পাদকীয় |  শনিবার, 18 জানুয়ারী 2014
KTS নিউজ ডেস্ক:     বাংলা চলচ্চিত্রের মহানায়িকা সুচি...
Read More

গেজেটে অষ্টম ওয়াইজ বোর্ড প্রকাশ

মুক্তমত-1 |  বুধবার, 18 সেপ্টেম্বর 2013
নিজস্ব প্রতিবেদক: সংবাদপত্র ও বার্তা সংস্থাগুলোর কর্মীদ...
Read More
এই বিভাগের সর্বশেষ আপডেট